৯ই জুলাই, ২০২৪ ইং | ২৫শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম
ইরানের রাষ্ট্রপতির মৃত্যুতে বাংলাদেশে একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঢাকায় প্রথমবারের মতো ডি-৮ যুব বিষষয়ক মন্ত্রী এবং সিনিয়র অফিসিয়াল পর্যায়ের সভা অনুষ্ঠিত কোরবানির পশুর বর্জ্য যথাযথভাবে অপসারণে পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের আহ্বান এলডিসি থেকে উত্তরণের পরও বাংলাদেশি পণ্যের জন্য ডিউটি ফ্রি, কোটা ফ্রি সুবিধা অব্যাহত রাখবে অস্ট্রেলিয়া উপজেলা নির্বাচনে সৎ ও যোগ্য চেয়ারম্যান প্রার্থী মিজান দেশের সার্বিক সমৃদ্ধি নিশ্চিতকরণে সরকার তৃণমূল মানুষের উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে —অর্থ প্রতিমন্ত্রী আলোকচিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যমে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর অত্যাচার ও নির্যাতন সম্পর্কে নতুন প্রজন্ম জানতে পারবে –মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী অবৈধ কারেন্ট জালসহ নিষিদ্ধ ঘোষিত অন্যান্য জাল ব্যবহার বন্ধ করা হবে – মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী অভিবাসন সংক্রান্ত অপতথ্য রোধে বাংলাদেশ-ইতালি একসঙ্গে কাজ করবে — তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী সুন্দরবনে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি
  • প্রচ্ছদ
  • জাতীয়
  • এলডিসি থেকে উত্তরণের পরও বাংলাদেশি পণ্যের জন্য ডিউটি ফ্রি, কোটা ফ্রি সুবিধা অব্যাহত রাখবে অস্ট্রেলিয়া
  • এলডিসি থেকে উত্তরণের পরও বাংলাদেশি পণ্যের জন্য ডিউটি ফ্রি, কোটা ফ্রি সুবিধা অব্যাহত রাখবে অস্ট্রেলিয়া

    এনএ নিউজ ২৪

    স্টাফ রিপোর্টার,ঢাকা, ৮ জ্যৈষ্ঠ (২২ মে):
    স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উত্তরণের পরও বাংলাদেশি পণ্যের
    জন্য ডিউটি ফ্রি, কোটা ফ্রি সুবিধা অব্যাহত রাখবে অস্ট্রেলিয়া।
    মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীতে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় বাংলাদেশ সফররত
    অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওঙ (Penny Wong) পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান
    মাহ্‌মুদের সাথে বৈঠক করেন। বৈঠক শেষে যৌথ প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদেরকে
    মন্ত্রী এ কথা জানান।
    অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার এম আল্লামা সিদ্দিকী এবং
    ঢাকায় অস্ট্রেলিয়ার ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনার নাদিয়া সিম্পসন (Nadia Simpson)
    বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।
    গত ২৬ বছরে এটিই প্রথম কোনো অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফর
    উল্লেখ করে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান এ সময় ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে
    সমর্থন দান ও ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সাথে সাক্ষাতের জন্য
    বাংলাদেশ সফরে আসা অস্ট্রেলিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী গো হুইটল্যামকে (Gough
    Whitlam) শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করেন। রোহিঙ্গাদের জন্য অস্ট্রেলিয়া সর্বোচ্চ
    সহযোগিতা প্রদান করায় পেনি ওঙকে ধন্যবাদ জানান মন্ত্রী।
    হাছান মাহ্‌মুদ জানান, আন্তরিকতাপূর্ণ বৈঠকে বাংলাদেশ থেকে দক্ষ
    জনশক্তি রপ্তানি, বাংলাদেশের ১০০টি বিশেষ ইকনোমিক জোন এবং ৪০টি আইটি
    ভিলেজে অস্ট্রেলীয় বিনিয়োগ, বাংলাদেশিদের মৌসুমি কর্মসংস্থান, সেখানে
    প্রবাসীদের কল্যাণ, অবৈধ অভিবাসন রোধ, জ্বালানি ও পরিবেশ সংরক্ষণে সহযোগিতা
    নিয়ে আলোচনা হয়েছে।
    অস্ট্রেলিয়ার টেকনিকাল এন্ড ফারদার এডুকেশন (TAFE) সহায়তার আওতায়
    বাংলাদেশের টেকনিকাল ট্রেনিং সেন্টারগুলোতে (TTC) উন্নত প্রশিক্ষণ সহযোগিতা
    কামনা করেছি, বলেন মন্ত্রী হাছান। তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়
    ইউটিসি'র সাথে আমাদের চট্টগ্রামের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রেডিট ট্রান্সফার
    সুবিধা রয়েছে যেমনটি অন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর জন্য করার বিষয়েও আলোচনা
    হয়েছে।

    অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী পেনি ওঙ বলেন, সামাজিক, অর্থনৈতিক,
    পরিবেশ সংরক্ষণসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যে ব্যাপক উন্নতি করেছে, তা আরো
    এগিয়ে নিতে অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশের পাশে থাকতে চায়। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি
    বলেন, মেরিটাইম সহযোগিতা বৃদ্ধির জন্য তার দেশের কোস্ট গার্ড প্রধান বাংলাদেশ
    সফর করবেন। ভারত মহাসাগরীয় দুই দেশের অভিন্ন স্বার্থরক্ষা, জলবায়ু পরিবর্তন
    মোকাবিলা, মানবাধিকারসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নে অস্ট্রেলিয়া বাংলাদেশের সাথে
    একযোগে কাজ করতে প্রস্তুত উল্লেখ করেন তিনি।

    আরও পড়ুন

    ইরানের রাষ্ট্রপতির মৃত্যুতে বাংলাদেশে একদিনের রাষ্ট্রীয় শোক
    কোরবানির পশুর বর্জ্য যথাযথভাবে অপসারণে পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের আহ্বান
    উপজেলা নির্বাচনে সৎ ও যোগ্য চেয়ারম্যান প্রার্থী মিজান
    দেশের সার্বিক সমৃদ্ধি নিশ্চিতকরণে সরকার তৃণমূল মানুষের উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দিচ্ছে —অর্থ প্রতিমন্ত্রী
    সুন্দরবনে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়ে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের বিবৃতি
    তাপমাত্রাজনিত স্বাস্থ্যঝুঁকি বিষয়ক জাতীয় গাইডলাইন সারাদেশে ছড়িয়ে দিতে হবে —স্বাস্থ্যমন্ত্রী
    বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর সাথে সুইডেনের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ
    নিম্ন মাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত মৌলিক ন্যূনতম শিক্ষা অধিকার নিশ্চিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় একযোগে কাজ করবে